যেকোন নাম্বারে সবচেয়ে কমরেটে কথা বলার একটি অ্যাপ

বর্তমানে দেশের সব অপারেটরের কলরেট হাতের নাগালের বাইরে চলে গেছে। বিশেষকরে শিক্ষার্থীদের জন্য উচ্চ কলরেটে কথা বলা সত্যিই কঠিন। আবার কিছু কিছু ক্ষেত্রে কথা একটু বেশিই বলতে হয়। আমাদের অনেকেই অনলাইনে কমরেটে কথা বলার উপায় অনুসন্ধান করেন। আমি আজ এরকম একটি অ্যাপ নিয়ে লিখবো আর এর সুবিধা, অসুবিধা তুলে ধরবো।

অ্যাপটির নাম

ব্রিলিয়ান্ট কানেক্ট (Brilliant Connect)। এখানে ক্লিক করে ডাউনলোড করতে পারেন

ফিচারগুলো

অ্যাপ থেকে অ্যাপে / মোবাইল নাম্বারে / PSTN কলঃ
অ্যাপ থেকে অ্যাপে কল ফ্রি। সাথে অন্য (ব্রিলিয়ান্ট নাম্বার ছাড়া) যেকোন নাম্বারে সর্বনিম্ন কলরেটে কল করা যাবে। অ্যাপ থেকে অ্যাপ কলের ক্ষেত্রে মোবাইলের ডাটা চার্জ প্রযোজ্য। পাশাপাশি অ্যাপে ভিডিও কলিং সুবিধা তো থাকছেই।

ALSO READ:  স্মার্টফোনেই তৈরি করুন নিজের সিভি, ডাউনলোড করুন তিনটি সিভি তৈরির অ্যাপ

ভিডিও এবং ভয়েস মেসেজ শেয়ারিং

দুই ক্লিকেই ভিডিও অথবা ভয়েস মেসেজ রেকর্ড করে শুভেচ্ছা বার্তা হিসেবে বন্ধুর স্পেশাল কোন দিনে তাকে পাঠিয়ে দিন।

ফ্রি এসএমএস

অ্যাপ থেকে অ্যাপে আনলিমিটেড ফ্রি এসএমএস পাঠান। এড়িয়ে চলুন ব্যয়বহুল এসএমএস রেট।

এছাড়াও গ্রুপ চ্যাট, লোকেশন শেয়ারিং সহ আছে আরও অনেক সুবিধা!

কল রেট

লোকাল কল রেট

Brilliant থেকে বাংলাদেশের যে কোন আই পি টেলিফোনি নম্বর (০৯৬***) কল ট্যারিফঃ ফ্রি

Brilliant থেকে অন্য লোকাল অপারেটর (মোবাইল / পিএসটিএন) কল ট্যারিফঃ ৩০ পয়সা / মিনিট (১ সেকেন্ড পালস) + ১৫% ভ্যাট

(ব্রিলিয়্যান্ট থেকে লোকাল নম্বরে অফনেট আউটগোয়িং কলে প্রতি মিনিটে ভ্যাটসহ ৩৪.৫০ পয়সা কাটে।)

Brilliant থেকে বিদেশ এর যে কোনো নম্বর এ কল রেট

সরকার অনুমোদিত চার্জ প্রযোজ্য (১৫ সেকেন্ড পালস) + ১৫% ভ্যাট। আন্তর্জাতিক কল রেট বিস্তারিত জানতে নিচের লিঙ্ক এ ক্লিক করুন এখানে। এছাড়া আপনার অ্যাপ এ সেটিংস > My Balance > Our Rates > উপরের ডান পার্শ্বে গোলাকার ম্যাগ্নিফাই গ্লাস চিহ্নে ক্লিক করে দেশের নাম লিখুন অথবা কান্ট্রিকোড লিখুন > এরপরে ফোন / মোবাইল নম্বরটি লিখুন তাহলে আপনার ডায়ালকৃত নম্বরের রেট দেখতে পারবেন।

ALSO READ:  নিজেকে শান্ত করতে মাত্র ১ মিনিট ব্যয় করুন

এসএমএস রেট

Brilliant থেকে শুধুমাত্র বংলাদেশের মাঝেই এসএমএস করা যাবে এবং এসএমএস রেটঃ ৩৫ পয়সা (ভ্যাট সহ)

আপনার ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপে টাকা এড করার পদ্ধতি

বিকাশ থেকে ব্রিলিয়ান্ট একাউন্টে টাকা যোগ করার পদ্ধতি

(বিকাশ পেমেন্টের অনেকগুলো পদ্ধতির মধ্যে আমি অনলাইন পদ্ধতিটি ধাপে ধাপে তুলে ধরলাম।)

আপনার ব্রিলিয়্যান্ট অ্যাপের সেটিংসে যান> My Balance অপশন সিলেক্ট করুন> Add balance অপশনে গিয়ে Recharge amount (BDT) বক্সে টাকার পরিমাণ লিখুন এবং Recharge বাটন প্রেস করুন> বিকাশ পেমেন্ট অপশনটি সিলেক্ট করুন> Your bKash account number বক্সে বিকাশ নম্বরটি লিখুন এবং Proceed অপশনটি সিলেক্ট করুন> আপনার বিকাশ নম্বরে একটি SMS আসবে এবং সেখান থেকে bKash verification code লিখুন> Proceed অপশনটি সিলেক্ট করুন> বিকাশ নম্বরের পিন কোড লিখুন এবং Confirm অপশনটি সিলেক্ট করুন> পেমেন্ট সম্পন্ন হওয়া বিজ্ঞপ্তি দেখতে পাবেন> আপনার বিকাশ নম্বরে পেমেন্ট সম্পন্ন হওয়া একটি SMS পাবেন।

রকেট থেকে ব্রিলিয়্যান্ট অ্যাকাউন্টে টাকা যোগ করার পদ্ধতি

ব্রিলিয়্যান্ট অ্যাপের সেটিংস থেকে My Balance এর Add Balance এ গিয়ে টাকার পরিমান টাইপ করে রকেট এর লোগো সিলেক্ট করুন। সঠিক রকেট নম্বর এবং পিন দিন। এরপর সিকিউরিটি কোড সঠিকভাবে বসিয়ে রিচার্জ করলেই আপনার ব্রিলিয়্যান্ট অ্যাপে ব্যালান্স আপডেট হয়ে যাবে।

ALSO READ:  কিভাবে পরিষ্কার করবেন আপনার স্মার্টফোন? কোন রকম ক্ষতি ছাড়াই!

ব্যাংক কার্ড থেকে ব্রিলিয়ান্ট একাউন্টে টাকা যোগ করার পদ্ধতি

আপনার ব্রিলিয়্যান্ট অ্যাপের সেটিংসে যান> My Balance অপশন সিলেক্ট করুন> Add balance অপশনে গিয়ে Recharge amount (BDT) বক্সে টাকার পরিমাণ লিখুন> Recharge বাটন প্রেস করুন> DBBL NEXUS/Visa/MasterCard/AMEX থেকে আপনার পেমেন্ট অপশনটি সিলেক্ট করুন> কার্ড সম্পর্কিত প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে আপনার পেমেন্ট সম্পন্ন করুন।

আরও বিস্তারিত জানতে আপনার অ্যাপের সেটিংসে গিয়ে Help এ ক্লিক করে যেকোন বিষয় জেনে নিন।

আমার মনেহয় ব্রিলিয়ান্ট সম্পর্কে আপনার ধারণা এটুকুই যথেষ্ট! বাকিটা ইন্সটল করেই নাহয় জেনে নিন। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন

ধন্যবাদ!