আবিষ্কার হলো করোনা ভাইরাসের প্রথম ভ্যাকসিন এবং খুব শীঘ্রই আসছে বাংলাদেশে করোনার টিকা

বিশ্বের প্রথম দেশ হিসাবে ফাইজার/বায়োনটেকের করোনাভাইরাস টিকার অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাজ্য

ব্রিটেনের নিয়ন্ত্রক সংস্থা, এমএইচআরএ বলছে, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ৯৫ শতাংশ সক্ষম এই টিকাটি এখন ব্যবহারের জন্য নিরাপদ।

বিশ্বজুড়ে করোনা সংক্রমণ

জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাবে বিশ্বজুড়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে পাঁচ কোটি, প্রাণ হারিয়েছেন সাড়ে ১২ লাখেরও বেশি মানুষ৷ ইউরোপসহ বিশ্বের নানা প্রান্তে কয়েক মাস সংক্রমণে ধীরগতি থাকার পর আবার দ্রুত হারে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা৷

করোনা ভাইরাসের টিকা আবিষ্কার

জার্মান শহর মাইনৎসে ১২ বছর আগে বায়োনটেকের পথচলা শুরু হয়৷ এই কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ উগুর জাহিন এবং তাঁর স্ত্রী ইমিউনোলজিস্ট উজলেম টুরেচি৷

তারা দুইজনই তুরস্ক বংশোদ্ভূত জার্মান নাগরিক৷ এই দম্পতির তৈরি বায়োনটেকে এখন কাজ করে ১৫শ’ কর্মী৷ ৫৫ বছর বয়সি জাহিনের জন্ম তুরস্কে৷ বাবা-মা’র সঙ্গে একসময় জার্মানিতে চলে আসেন তিনি৷ মেডিসিন এবং গণিত নিয়ে পড়ালেখা করেন কোলোন বিশ্ববিদ্যালয়ে৷

ALSO READ:  শীতে ত্বকের শুষ্কতা থেকে বাঁচার ১০টি উপায়

ভ্যাকসিন তৈরির সিদ্ধান্ত

২০০০ সালের জানুয়ারিতে জাহিন করোনা ভাইরাস সম্পর্কে প্রথম জানতে পারেন৷ তখনই তাঁর আশঙ্কা হয় এটি মহামারি রূপ নেবে৷ সেসময়ই ভ্যাকসিন প্রস্তুতের সিদ্ধান্ত নেন তিনি৷

করোনা প্রতিরোধে ভ্যাকসিনটির ভূমিকা

বায়োনটেকের প্রধান নির্বাহী উগুর জাহিন জানিয়েছেন, এই টিকার প্রতিরোধ ক্ষমতা অন্তত এক বছর স্থায়ী হবে৷ যৌথ বিবৃতিতে ফাইজারের চেয়ারম্যান ও তিনি জানিয়েছেন, ‘‘টিকার তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষার প্রাথমিক ফলে আমরা প্রমাণ পেয়েছি যে এটি কোভিড-১৯ প্রতিরোধ করতে পারে৷’’

যাদের আগে কখনও করোনা সংক্রমণ হয়নি, এমন মানুষের ওপর চালানো পরীক্ষায় দেখা গেছে যে টিকা দেয়ার পর শরীরে করোনা ভাইরাস প্রবেশ করলেও তাদের কোভিড-১৯ হয়নি৷ জুলাইয়ের শেষ থেকে শুরু হওয়া তৃতীয় পর্যায়ের এ ট্রায়ালে ৪৩ হাজার ৫০০ জনেরও বেশি মানুষ অংশ নিয়েছেন৷ মার্কিন খাদ্য ও ওষুধ নিয়ন্ত্রণ সংস্থা এফডিএর অনুমতির জন্য আবেদন করা হবে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠান দু’টি৷

১৬ হাজার কোটি টাকার চুক্তি

ফাইজার ও বায়োনটেক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে টিকা সরবরাহে এরই মধ্যে ১৬ হাজার কোটি টাকারও বেশি অর্থের চুক্তি সই করেছে৷ চুক্তি সই হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাজ্য, ক্যানাডা, জাপানের সঙ্গেও৷ ২০২০ সালেই প্রতিষ্ঠান দু’টি পাঁচ কোটি ডোজ টিকা উৎপাদন করবে। ২০২১ সালে আরো ১৩০ কোটি ভ্যাকসিন উৎপাদনের প্রস্তুতি নিচ্ছে ফিজার৷

ALSO READ:  করোনা ভাইরাসের লাইভ আপডেট, এইমাত্র পাওয়া সর্বশেষ তথ্য

বাংলাদেশে করোনার টিকা

আগামী মাসের প্রথম ভাগে দেশে করোনার টিকা আসবে। ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদন করা অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকা আনবে সরকার। এই টিকা আনার জন্য আগেই চুক্তি করা আছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

‘বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও বাংলাদেশকে কিছু টিকা দেবে। সেগুলো সময়মতো বাংলাদেশ হাতে পেয়ে যাবে। আশা করা হচ্ছে, এই টিকা থেকে দেশের প্রায় ২৭ ভাগ মানুষ ক্রমান্বয়ে টিকা পাবে।’ – বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

উপসর্গ

সবশেষে ভ্যাকসিন নেয়ার আগ পর্যন্ত আমাদের সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। তাই আবারও আপনাদের করোনার উপসর্গগুলো মনে করিয়ে দিতে চাইঃ

সবচেয়ে সাধারণ উপসর্গসমূহ

ক্লান্তিভাব

শুকনো কাশি

জ্বর

 

কম সাধারণ উপসর্গসমূহ

ব্যথা ও যন্ত্রণা

গলা ব্যথা

ডায়রিয়া

কনজাংটিভাইটিস

মাথা ব্যথা

স্বাদ বা গন্ধ না পাওয়া

ত্বকে ফুসকুড়ি ওঠা বা আঙুল বা পায়ের পাতা ফ্যাকাসে হয়ে যাওয়া

 

তথ্যসূত্রঃ

DW

BBC

ধন্যবাদ!